ভালোবাসার বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা ।

ভালোবাসা সকল মানুষের কাছেই এক বিশাল আলোচিত বিষয়। কিন্তু কি এই ভালোবাসা ? তা কি আমরা একবারও গভীর মনে চিন্তা করে দেখিছি ? সম্ভবত ৯৮% মানুষ অজ্ঞ ভালোবাসা সংজ্ঞা নিয়ে।প্রেম ও ভালোবাসার অধ্যায় গুলো নিয়ে বিস্তর গবেষণা করেছেন পৃথিবীর নশ্বর বিজ্ঞানী ও মনোবিদরা। কিন্তু এ বিষয় সম্পর্কে শেষ কথাটি বলতে পারেনি আজও কেউ। তবে তাদের গবেষণা মতে, প্রেমে পড়লে মস্তিষ্ক থেকে বিপুল পরিমাণ নিঃসৃত হতে থাকে ফিনাইল ইথাইল অ্যামিন (Phenyl ethylamine) ও অ্যামফিটামিন (Amphetamine)জাতীয় রাসায়নিক।

যা স্নায়ুতন্ত্রের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে সমস্ত কোষে। যার ফলে ইউফোরিয়া (Euphoria) উৎপন্ন হয়। এ জন্যই প্রেমে পড়লে অকারণে প্রচণ্ড আনন্দ আর উত্তেজনা দেখা দেয়। তখন কাঠ ফাটা রৌদ্রের দুপুর বেলাও তার কাছে মনে হবে শরতের নির্জন দুপুর বেলা, ঘন অন্ধকার আমাবস্যায়ও মনে হবে আকাশে চাঁদ খেলা করছে যদি ভালোবাসার মানুষটি কাছে থাকে। এককথায় বলতে, মাদকীয় অনুভূতি অনুভূত হয় তার শরীরে। এই রাসায়নিক প্রক্রিয়াটা প্রথমে অনেক বেড়ে যায়। তার পর আস্তে আস্তে কমতে থাকে। এই রাসায়নিক প্রক্রিয়া কমে যাওয়া মানে প্রেমানুভূতির তীব্রতা কমে যাওয়া। যত দিন যাবে ধীরে ধীরে দুটিই কমতে থাকে। তাই ৯৮% প্রেমে প্রথমে ভালোবাসা অনেক বেশী থাকে তারপর যত দিন যায় তত ভালোবাসা কমে যায়। অধিকাংশের ক্ষেত্রে একবারেই শেষ হয়ে যায়।

পোস্টটি ভাল লাগলে শেয়ার করে অন্যকে জানতে সাহায্য করুন।

এবং পোস্ট সম্পর্কিত যেকোনো প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকলে মন্তব্য করুন।

Facebook Comments

Website Comments

  1. ইকরাম
    Reply

    ভালবাসা
    আর কয়বার কমেন্ট করমু???

    ভালবাইসা কমেন্ট করতে আইসি

    স্নায়ুতে কেমন জানি করতেসে…

  2. Yakub Ali
    Reply

    খুব সুন্দর ধন্যবাদ ভাই আসা করি আরো সুন্দর কিছু পাব আপনার কাছে থেকে .

  3. lolx
    Reply

    উৎপন্ন হয়। এ জন্যই প্রেমে পড়লে অকারণে প্রচণ্ড আনন্দ আর উত্তেজনা দেখা দেয়। তখন কাঠ ফাটা রৌদ্রের দুপুর বেলাও তার কাছে মনে হবে শরতের নির্জন দুপুর বেলা, ঘন অন্ধকার আমাবস্যায়ও মনে হবে আকাশে চাঁদ খেলা করছে যদি ভালোবাসার মানুষটি কাছে থাকে। এককথায় বলতে, মাদকীয় অনুভূতি অনুভূত হয় তার শরীরে। এই রাসায়নিক প্রক্রিয়াটা প্রথমে অনেক বেড়ে যায়। তার পর আস্তে আস্তে কমতে থাকে। এই রাসায়নিক প্রক্রিয়া কমে যাওয়া মানে প্রেমানুভূতির তীব্রতা কমে যাওয়া। যত দিন যাবে ধীরে ধীরে দুটিই কমতে থাকে। তাই ৯৮% প্রেমে প্রথমে ভালোবাসা অনেক বেশী থাকে তারপর যত দিন যায় তত ভালোবাসা কমে যায়। অধিকাংশের ক্ষেত্রে একবারেই শেষ হয়ে যায়।

  4. md.rifat hossain
    Reply

    প্রেমে পড়লে রাসায়নিক পদার্থ বাইর হয় এইটা মানলাম। কিন্তু মানুষ প্রেমে পড়ে কেমনে?? তখন ত কোন রাসায়নিক কিছু বাইর হয় না। দুনিয়াতে এত এত মেয়ে থাকা সত্তেও বিশেষ একজন কে দেখলেই ভাল লাগার অনুভুতি টা হয় কেন???? এইটার ব্যাখ্যা কি???

    • হোসেন রাহাত
      Reply

      এটা ভালোবাসার ব্যাখ্যা। আমি এটা বানিয়ে বানিয়ে লিখি নি। এটা বিজ্ঞানীরা গবেষণা করে পেয়েছে আমি তাদের সাইট এ পেয়েছে তাই সবার সাথে শেয়ার করলাম।
      আপনি যে প্রশ্ন করেছেন এটা তো ভালোবাসা না, এটা ভালোলাগা। ভালোবাসা আর ভালোলাগা র মধ্যে অনেক তফাত আছে। একটা মেয়েকে দেখলে ভালো লাগতে পারে কিন্তু এটাতো ভালোবাসা না। বুঝলেন।

মন্তব্য করুন